Home / খবর / ভাইয়ের দুই সন্তানসহ ভা’বিকে নিয়ে লা’পা’ত্তা ১৯ বছরের দে’বর

ভাইয়ের দুই সন্তানসহ ভা’বিকে নিয়ে লা’পা’ত্তা ১৯ বছরের দে’বর

ঢাকার ধামরাইয়ে বড় ভাইয়ের দুই স;ন্তানসহ তার স্ত্রী কে নিয়ে পা;লিয়ে বিয়ে করেছেন মোঃ রাকিব হোসেন (১৯)। বড় ভাই মোঃ রবিউল ইসলাম (২৬) অভি;যোগ করে বলছেন তার দুই ছেলেকে জি;ম্মি করে এখন ৫ লাখ টাকা দাবি করছেন তারই ছোট ভাই রাকিব। এ বিষয়ে ধামরাই থানায় ছোট ভাই রাকিবের বিরু;দ্ধে একটি অভি;যোগ দা;য়ের করেছেন বড় ভাই রবিউল। বৃহস্পতিবার (২১ মে) দুপুরের দিকে অভি;যো;গের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আতিকুর রহমান (পিপিএম)।

এর আগে গত (৯ মে) অভিযুক্ত রাকিব তার ভাইয়ের দুই স;ন্তানসহ স্ত্রী;কে নিয়ে বাড়ি থেকে পা;লিয়ে যায়। পরের দিন ১০ মে তারা ঢাকার মোহাম্মদপুরে তারা বিয়ে করেন।

জানা যায়, বিদেশ থাকার সময় থেকেই ছোট ভাই রাকিবের সাথে আমার স্ত্রী আরি;ফার প;রকী;য়া ছিল। আমি ঢাকায় চাকরি করতাম। আর এই সুযোগে সে রাকিবের সাথে পর;কী;য়ার জড়িত হয়ে পরে।

ধামরাই উপজেলার রোয়াইল ইউনিয়নের দধিঘাটা এলাকার ইশার আলীর ছেলে মোঃ রাকিব হোসেন (১৯)। সে সৌদি প্রবাসী ছিলেন। চলতি মাসের ২ তারিখে সৌদি থেকে বাড়িতে আসেন তিনি। ভুক্ত;ভোগী বড় ভাই মোঃ রবিউল ইসলাম (২৬) ঢাকার একটি প্রেসে কাজ করেন। এবং রবিউলের স্ত্রী আরিফা আক্তার (২২) মানিকগঞ্জ জেলার মানিকগঞ্জ থানার কইতরা এলাকার মোঃ নজরুল ইসলামের মেয়ে। সে প্রায় ৬ বছর পূর্বে রবিউলকে বিয়ে করেন। তাদের আরহান (৫) ও ইব্রাহীম (২) নামে দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

মোঃ রবিউল হোসেন বলেন, আমার নিজের ছোট ভাই আমার দুই সন্তা;নসহ আমার স্ত্রী;কে নিয়ে পা;লিয়ে বিয়ে করেছে। আমি বিদেশ যাবার জন্য আমার চা;চার কাছ থেকে তিন লাখ টাকা এনে ঘরে রাখছি। পা;লিয়ে যাবার সময় সেই তিন লাখ টা;কা ও স্বর্ণা;লংকার নিয়ে গেছে। এখন আবার আমার দুই ছেলেকে জি;ম্মি করে আমার কাছে ৫ লাখ টাকা চাইছে আমার ছোট ভাই। টাকা না দিলে আমার সন্তান;দের ক্ষ;তি ক;রবে। এতদিন আমি কিছু বলি নাই পারিবা;রিক বিষয়। কিন্তু এখন কোন উপায় না পেয়ে থানায় অভি;যোগ দি;লাম। আমার স্ত্রী ভাই কাওকে প্রয়োজন নাই আমার। আমার দুই ছেলেকে ফিরিয়ে দিলেই হবে আমার।

অভি;যুক্ত রাকিব হোসেন বলেন, আমি আমার ভা;বিকে আমার পরিবার ও আমার ভাই;য়ের চা;পে বিয়ে করতে বাধ্য হয়েছি। এই মাসের ১০ তারিখে আমরা বিয়ে করে বর্তমানে ঢা;কায় আছি। কিন্তু আমার ভাইয়ের কাছে কোন টাকা পয়সা আমি চাইনি। উ;ল্টো আমি তাকে টাকা দিছি।

রবিউলের স্ত্রী আরিফা আক্তার জানান, আমার স্বামী আমাকে বিভিন্ন সময় নি;র্যা;তন করতো। আমার মা;র কাছ থেকে টাকা আনতে বলতো। ওর ছোট ভাই আমার দে;বরের কাছ থেকেও টাকা চাইতে বলতো আমাকে। আমি টাকা না চাওয়াতে আমার স্বামী বলতো তুই রাকিবের কাছে টাকা নেছ না কেন। তোর সাথে ওর প্রেমের সম্পর্ক আছে। তোদের বিয়ে পরি;য়ে দিবো দুজনকে। এমন নানা রকম চা;পের কারণে আমরা বিয়ে করতে বাধ্য হয়েছি। তবে আমি আর রবিউলের সাথে থাকতে চাই না।

এবিষয়ে ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতিকুর রহমান জানান, রবিউল নামের এক যুবক এরকম একটি অভিযো;গ দিয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে এর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Check Also

স্বামীকে সারপ্রাইজ দেওয়ার জন্য সাপের পোশাক পরলেন স্ত্রী’, উল্টো পা ভেঙ্গে দিল স্বামী

বর্তমান যুগ হচ্ছে ফ্যা’শনের যুগ। বর্তমান যুগের মানুষজনও সবার সাথে পাল্লা দেওয়ার জন্য হয়ে উঠছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *